• ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

প্রধান বিরোধী দল জয় পেয়েছে ইস্তাম্বুল আঙ্কারা ও দেশটির তৃতীয় বড় শহর ইজমিরেও, নির্বাচনে গণতন্ত্রের বিজয়ের প্রশংসা করেছেন এরদোগান

usbnews
প্রকাশিত এপ্রিল ১, ২০২৪
প্রধান বিরোধী দল  জয় পেয়েছে ইস্তাম্বুল  আঙ্কারা ও দেশটির তৃতীয় বড় শহর ইজমিরেও, নির্বাচনে গণতন্ত্রের বিজয়ের প্রশংসা করেছেন এরদোগান
নিউজটি শেয়ার করুনঃ

রোববার তুরস্কে স্থানীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইস্তাম্বুলের বর্তমান মেয়র, বিরোধী নেতা একরেম ইমামোগ্লু পুননির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। ভোট গণনা শেষে তেমন আভাসই পাওয়া যাচ্ছে।

প্রধান বিরোধী দল সিএইচপি শুধু এই শহরেই নয়, জয় পেয়েছে আঙ্কারা ও দেশটির তৃতীয় বড় শহর ইজমিরেও।৷ রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, অনানুষ্ঠানিক ফলাফলে ৮১টি শহরে সিএইচপি জয় নিশ্চিত করেছে, যা প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেপ এরদোগানের জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলাপমেন্ট পার্টি-একেপির জন্য বড় ধাক্কা। একরেম ইমামোগ্লু সামাজিক মাধ্যম এক্স-এ লিখেছেন, ‘আজ আমাদের প্রতিপক্ষ ও প্রেসিডেন্ট উভয়কেই ইস্তাম্বুলের এক কোটি ৬০ লাখ নাগরিক একটি বার্তা দিয়েছেন।’ এজন্য ভোটারদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

এদিকে, সোমবার রাজধানী আঙ্কারায় একে পার্টির সদর দপ্তরের বাইরে তার জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির (একে পার্টি) সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান। তিনি এবারের স্থানীয় নির্বাচনকে গণতন্ত্রের বিজয় বলে অভিহিত করেছেন। এ সময় তাদের সমর্থন এবং দেশে গণতন্ত্রের প্রসারের জন্য ধন্যবাদ জানান তিনি।

সমর্থকদের উদ্দেশ্যে এরদোগান বলেন, ‘কোনো বাধার সম্মুখীন না হয়েই জাতি ব্যালটে নিজেদের ইচ্ছা প্রদর্শন করেছে। এটি তুর্কি গণতন্ত্রের জন্য একটি বড় বিজয়।’ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, ‘আমরা আমাদের গণতন্ত্রের জন্য উপযুক্ত পরিপক্বতার সঙ্গে ৩১ মার্চের নির্বাচন শেষ করেছি। নির্বাচনে অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো ঘটনা ঘটেনি।’

তবে একটি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনের সদস্যরা তুরস্কের পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্বে বসবাসরত নাগরিকদের ওপর চাপ ও অপমান করার কাজে জড়িত ছিল বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। এরদোগান আরও বলেন, ‘আমাদের নাগরিকদের সাধারণ জ্ঞানের জন্য ধন্যবাদ। তুরস্কের গণতন্ত্র আবার তার পরিপক্বতা প্রমাণ করেছে। নির্বাচন গণতন্ত্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিন এবং মানুষ ব্যালটের মাধ্যমে তাদের পছন্দের কথা জানিয়েছে।’